যৌন নিপীড়নে অভিযুক্ত জবি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী দুই বোনের সাথে ঘটে যাওয়া যৌন নিপীড়নের সঠিক বিচার এবং অভিযুক্ত নাট্যকলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল হামিদ প্রামাণিককে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধনে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থী।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, একজন শিক্ষক যৌন নিপীড়নের অভিযোগে অভিযুক্ত প্রমাণ হওয়ার পরেও তাকে কেন শাস্তির আওতায় আনা হয়নি? ২০১৭ সাল থেকে তদন্ত চলছে অর্থাৎ তিন বছর ধরে যে তদন্ত চলছে এটা শিক্ষার্থীদের দাবি দাবায়ে রাখার জন্য একটা প্রহসনের নাটক করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। মূলত এই শিক্ষককে বাঁচানোর জন্য তিন বছর ধরে এই তদন্তটা চালিয়ে যাচ্ছে প্রশাসন।

শিক্ষার্থীরা বক্তব্যে আরো বলেন, আইন সবার জন্য সমান হওয়া উচিত। আপনারা জানেন এর আগেও ২০১৭ সালে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক রাজিব মীরকে একই অভিযোগে তাকে বহিষ্কার করা হয়, তাকে যদি বহিষ্কার করা যায়, তাহলে আব্দুল হামিদ প্রামাণিককে কেন বহিষ্কার করা যাবে না?

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে জবির নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষক আব্দুল হালিম প্রামাণিকের বিরুদ্ধে যৌন নিপিড়নের অভিযোগ আনেন দুই শিক্ষার্থী। এঘটনায় দুই দফা তদন্তের পর ২০১৮ সালে ৭৭তম সিন্ডিকেট সভায় তাকে তিরস্কার ও দুই বছরের জন্য পদোন্নতি পিছিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু ভুক্তভোগী ছাত্রী এমন শাস্তিতে অসন্তুষ্ট জানিয়ে উপাচার্য বরাবর চিঠি দিলে ফের উচ্চতর তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সর্বশেষ চলতি বছর ৭ সেপ্টেম্বর ৮২তম সিন্ডিকেটে তাকে লঘু শাস্তি দেওয়া হয়। তবে তদন্ত কমিটির অস্পষ্ট বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সিন্ডিকেট সদস্যরা।

Check Also

সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজারবাগ দরবার শরীফের বিবৃতি

সম্প্রতি সিআইডির একটি কথিত তদন্ত প্রতিবেদন এবং কয়েকটি মানববন্ধনকে কেন্দ্র করে গণমাধ্যমে রাজারবাগ দরবার শরীফের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *