সৌদি আরবে কিশোরী গৃহকর্মী কুলসুম হত্যার প্রতিবাদ  ও সরকারের দায়হীনতার তীব্র নিন্দা

বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্রের সভাপতি সীমা দত্ত ও সাধারণ সম্পাদক নীলুফার ইয়াসমিন শিল্পী আজ এক যৌথ বিবৃতিতে সৌদি আরবে কিশোরী গৃহকর্মী কুলসুম হত্যার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ১৪ বছরের কিশোরী কুলসুম সৌদি আরবে গিয়েছিল গৃহকর্মীর কাজে। সেখানে গৃহকর্তা ও তার ছেলের দ্বারা অমানবিক নির্যাতনের স্বীকার হয় সে। তারা কুলসুমের দুই হাঁটু ও কোমড় ভেঙে দেয় এবং কিছুদিন পর একটি চোখ নষ্ট করে তাকে রাস্তায় ফেলে দেয়। গত ৯ আগস্ট সৌদি আরবের এক হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার নারী ও শিশু কাজের আশায় সৌদি আরবে পাড়ি জমায়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তারা অত্যন্ত নিগ্রহের স্বীকার হয়, এমনকি কখনো কখনো লাশ হয়ে দেশে ফিরতে হয়। অতীতেও এমন ঘটনার শিকার হয়ে বহু শ্রমিককে জীবন দিতে হয়েছে কিন্তু ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা হয়নি। প্রবাসী শ্রমিকদের বিদেশে পাঠানো এবং তাদের সুষ্ঠু কর্মপরিবেশের বিষয়ে সরকারের চরম দায়িত্বহীনতার কারণে শ্রমিকদের জীবনে এমন দুর্ভোগ নেমে আসে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ প্রবাসে কর্মরত সকল শ্রমিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা,অপরাধীদের শাস্তি বিধানের জন্য কূটনৈতিক তৎপরতা বৃদ্ধি করা এবং দেশে কর্মসংস্থানের যথাযথ পদক্ষেপের দাবি জানান। একইসাথে এই নির্মম নির্যাতনের প্রতিবাদ এবং রাষ্ট্রের দায়িত্বহীনতার নিন্দা জানান।

Check Also

দুই জেলায় দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ৪

প্রতিবেদক: দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নরসিংদীতে তিন এবং কক্সবাজারে একজন নিহত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *