‘আমি ওইসব করতে চাই না বলে চিৎকার করছিলাম, তবু সে ছাড়েনি’

মিডিয়া পাড়ায় প্রায়ই শোনা যায় কাস্টিং কাউচের কথা। সোজা কথায় যার শাব্দিক অর্থ যৌন হেনস্তা। এমন হেনস্তার শিকার আনেক অভিনেত্রী। কেউ মুখ খোলেন না লজ্জায় আবার কেউবা বোমা ফাটিয়ে দেন। এবার সেই কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুললেন রেশমী দেশাই। বিস্ফোরক এক মন্তব্য করে বসলেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ।

গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রেশমি অভিনয় জগতের নানা অজানা গল্প প্রকাশ করলেন। দুঃসহ সেই ঘটনার স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে রেশমী বলেন, ‘প্রায় ১৩ বছর আগে কাজ শুরু করি মিডিয়ায়। বেশ অল্প বয়সেই মিডিয়াতে আসা আমার। এর আগে মিডিয়ায় কাজের কোনো অভিজ্ঞতা ছিল না। একেবারেই নবাগত ছিলাম। ওই সময় সুরজ নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। সে এখন কোথায় আছে বা কী করছে তা জানি না। প্রথম মিটিংয়েই সে আমার ‘স্ট্যাটিসটিক্স’ জানতে চায়। ওকে বললাম আপনি ঠিক কী জানতে চাইছেন, আমি বুঝতে পারছি না। তখনই ও আমায় যৌন হেনস্তা করার চেষ্টা করে।’

ওই ব্যাক্তির কথা তুলে ধরে রেশমী আরও বলেন, ‘হঠাৎ একদিন সুরজ কাজের জন্য আমায় ফোন দেয়। কিন্তু সেখানে গিয়ে সুরজ ছাড়া আর কাউকে দেখতে পাইনি। কোনো ক্যামেরাও ছিল না। সে ড্রিঙ্কসে কিছু মিশিয়েছিল। এ কারণে আমার স্বাভাবিক চেতনা লোপ পায়। এর পরেও আমি ওইসব করতে চাই না বলে চিৎকার করছিলাম। তবুও সে ছাড়েনি। প্রায় আড়াই ঘণ্টা পরে আমি কোনোভাবে সেখান থেকে প্রাণ বাঁচিয়ে বাড়িতে ফিরে আসি। বাড়িতে ফিরেই মাকে সবটা বলি। পরদিন মা ওর সঙ্গে দেখা করে ওকে চড়ও মেরেছিল।’

ভারতের জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো ‘বিগ বস ১৩’ এর আসরে দেখা যায় রেশমী দেশাইকে। শো’র পর বর্তমানে রেশমীর জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া। আর এই মুহূর্তে কাস্টিং কাউচের বিরুদ্ধে রেশমীর এই বিস্ফোরক মন্তব্যর জেরে গরম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো। তবে অবাক করা বিষয় হল রেশমির পক্ষে সবাই সুর মেলালেও তার সমালোচনাও করছেন অনেকেই।

Check Also

টাইমের ১০০ প্রভাবশালীর তালিকায় মোদি-মমতা-বারাদার

ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক টাইম ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *