সাঁথিয়ায় টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের নির্মাণকাজ শেষ প্রান্তে,জানুয়ারিতে ক্লাস শুরু

মনসুর আলম খোকন,সাঁথিয়া(পাবনা) প্রতিনিধি:
প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করা অগ্রাধিকার প্রকল্পে পাবনার সাঁথিয়ায় প্রায় সাড়ে ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ নির্মাণকাজ প্রায় শেষ প্রান্তে। আগামী নভেম্বরে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ বুঝিয়ে দিবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা প্রকৌশলী অধিদপ্তর। ১ জানুয়ারি দেশের ১০০টি স্কুল এন্ড কলেজের মধ্যে ২৫ টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একযোগে ক্লাস শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।
জানা গেছে, সাঁথিয়া পৌরসভাধীন দৌলতপুরে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ নির্মাণের জন্য প্রায় তিন একর জমি অধিগ্রহণ করে টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। কার্যাদেশ পেয়ে ঢাকাস্থ মজিদ এন্ড সন্স ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ২০১৭ সালের ২৩ অক্টোবর নির্মাণকাজ শুরু করে। এতে ১৫ কোটি ৪৭ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ব্যয়ে একটি ৫তলা ও একটি ৪ তলা ভবনের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল জানুয়ারী ২০১৯ সালে। গত ১৮ মাসে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নির্মাণকাজ নির্ধারিত সময়ের দেড় বছর পরও শেষ হয়নি। প্রকল্প কাজের নকশা ও সিদ্ধান্ত দফায় দফায় পরিবর্তনে এর নির্মাণকাজ যথাসময়ে শেষ করা যায়নি বলে সংশ্লিষ্ট স‚ত্র জানায়। এতে করে সরকারের কারিগরি শিক্ষা প্রসারের যে উদ্যোগ তা ব্যাহত হওয়াসহ নির্মাণকাজের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকেও আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে। নির্মাণকাজের সময় বাড়িয়ে আগামী অক্টোবর ২০২০ পর্যন্ত সময় দেয়া হয়। বর্তমানে প্রায় ৮৫ ভাগ কাজ শেষের পথে। আগামী নভেম্বরে শতভাগ কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর।ঠিকাদরী প্রতিষ্ঠান মজিদ এন্ড সন্স এর ম্যানেজার রকিবুল ইসলাম। তিনি জানান,দ্রæততম সময়ে কাজ শেষ করার জন্য জনবল বেশী করে নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। নির্মাণকাজ দেরী হওয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কাজের রিভাইস নক্সা জটিলতা,বার বার নক্সা বদল, করোনা,সব মিলিয়ে নির্মাণকাজের দেরী হয়েছে। তবে আগামী নভেম্বরে কাজ বুঝিয়ে দিতে পারবো বলে আশা রাখি।পাবনা শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প এটি। সারাদেশে ১০০ টি স্কুল এন্ড কলেজের মধ্যে এটি একটা। আগামী জানুয়ারীতে সাঁথিয়াসহ দেশের ২৫টি স্কুল এন্ড কলেজে একযোগে ক্লাস শুরু হবে। আগামী ৩০ নভেম্বরে কাজ শেষ হয়ে যাবে আশা রাখছি। কাজের মান ও সন্তাষজনক বলে তিনি জানান। ###

Check Also

দুই জেলায় দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ৪

প্রতিবেদক: দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নরসিংদীতে তিন এবং কক্সবাজারে একজন নিহত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *