সাভারে প্রেমের প্রস্তাব প্রত‍্যাখান করায় স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ, সন্দেহভাজন পলাতক

 

কে,এম,তোফাজ্জেল হোসেন জুয়েল (ব‍্যুরো চীফ সাভার)সাভার উপজেলা থেকে## এক স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ, প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই ছাত্রীকে হত্যা করেছেন স্থানীয় যুবক মিজানুর।

নিহত নিলা রায় (১৪) মানিকগঞ্জ জেলার বালিরটেক এলাকার নারায়ণ রায়ের মেয়ে এবং সাভার পৌর এলাকার ব্যাংক কলোনির অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী। নিলা পরিবারের সঙ্গে পৌর এলাকার কাজী মোকমা পাড়ায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

নিহত স্কুলছাত্রীর ভাই অলক পাল জানান, তিনি ও তার ছোট বোন নিলা গত কাল সন্ধার দিকে হাসপাতালে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হন। পথে মিজানুর তাদের গতিরোধ করেন। পরে তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেন এবং জোড় করে নিলাকে পরিত্যক্ত একটি বাড়িতে নিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা নিলাকে উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তার বোনকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেন অলক।

হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিলার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুড়ি দিয়ে কোপানো হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়।

সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গত কাল রাত ৮টার দিকে সাভার পৌর এলাকার দক্ষিণ পাড়ার আব্দুর রহমানের পরিত্যক্ত বাড়িতে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। অভিযুক্ত মিজানুর বাড়ির মালিক আব্দুর রহমানের ছেলে এবং স্থানীয় একটি কলেজের একাদশ শ্রেনীর শিক্ষার্থী।’

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মিজানুর এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। মিজানুরকে আটকে অভিযান চালানো হচ্ছে বলেও জানান পুলিশ কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।’

হত্যার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, প্রেমঘটিত কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। মিজানুরকে আটকের পর হত্যার প্রকৃত কারণ জানা যাবে।’

আজ সোমবার সকালে দ্য ডেইলি স্টার ওই পরিত্যক্ত বাড়িটি পরিদর্শন করেছে। বাড়িতে তিন কক্ষবিশিষ্ট একটি টিনশেড ঘর আছে। কক্ষ তিনটি তালাবদ্ধ এবং একটি কক্ষের লোহার দরজায় রক্তের ছাপ দেখা গেছে। এ ছাড়া, বাড়িতে আরও দুটি ছোট পরিত্যক্ত কক্ষ রয়েছে, যেখানে মাদকদ্রব্য সেবন করার আলামত দেখা গেছে।

স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করেন, পরিত্যক্ত বাড়িটিতে এলাকার বখাটেরা আড্ডা দেয় এবং বিভিন্ন অপকর্ম করে।

গতকাল রাত ৮টার দিকে পরিত্যক্ত ওই বাড়িতে এর মালিকের ছেলে মিজানুর একটি মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন বলে জানান স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা।

নাম না প্রকাশের শর্তে এক যুবক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘মিজানুরকে রাত সাড়ে ৭টার দিকে একটি মেয়েকে নিয়ে ওই বাড়ির সামনের রাস্তায় দাড়িয়ে থাকতে দেখেছি।’

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সাভারে এক স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, সাভার পৌর এলাকার পাল পাড়ায় রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নিলা রায় (১৪) মানিকগঞ্জ জেলার বালিরটেক এলাকার নারায়ণ রায়ের মেয়ে এবং সাভার পৌর এলাকার ব্যাংক কলোনির অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

নিলা পরিবারের সঙ্গে পৌর এলাকার কাজী মোকমা পাড়া একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

পরিদর্শক সাইফুল বলেন, “একই এলাকার বাসিন্দা মিজানুর নামের এক যুবক নীলাকে প্রেমের প্রস্তাব দিলে নীলা তা প্রত্যাখ্যান করে। রোববার রাত আনুমানিক ৮টার দিকে নীলা ও তার ভাই অলক পালকে পাড়ায় পেয়ে মিজানুর তাদের গতিরোধ করে।

“এ সময় মিজান অলককে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেয় এবং পরে নীলাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা নিলাকে উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করে ।”

এ পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “প্রেমে ব্যর্থ হয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরর প্রক্রিয়া চলছে।”

Check Also

ফোনালাপ ফাঁস : ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ ও সেই অভিভাবককে জিজ্ঞাসাবাদ

ডেস্ক : ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার ও অভিভাবক মীর সাহাবুদ্দিন টিপুর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *