নুরের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা ড. কামাল হোসেনের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে মামলায় গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া নিন্দা প্রকাশ করেছেন। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) এক বিবৃতিতে তারা নূরের মামলাকে মিথ্যা দাবি করে প্রয়োজনবোধে গণফোরাম ভিপি নূরসহ আন্দোলনরত সকল নেতৃবৃন্দকে আইনি সহায়তা দেবে।

গণফোরাম কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মোশতাক আহমেদের গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘আমরা ডাকসু ভিপি নুরকে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার ও হয়রানির তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। ক্ষমতাশীল দলের একটি বিশেষ অঙ্গসংগঠনের মহিলা কর্মীদের নামে বেশ কয়েকবার মিথ্যা ও নোংরা মামলা দিয়ে নুরকে হয়রানি করা হচ্ছে।’

বিবৃতিতে তারা আরো বলেন, ‘অতীতেও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের বিরুদ্ধে গরু চুরির মামলা দিয়ে হয়রানি করেছিল, কিন্তু শেষ রক্ষা পায়নি। আমরা সরকারকে এই রাজনৈতিক নোংরামি বন্ধের আহ্বান জানাচ্ছি এবং ভিপি নুরের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মামলা দ্রুত প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।’

প্রয়োজনবোধে গণফোরাম ভিপি নুরসহ আন্দোলনরত সকল নেতৃবৃন্দকে আইনি সহায়তা দেওয়া হবে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

ধর্ষণের অভিযোগ এনে নুরুল হক নুরসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে গত সোমবার রাজধানীর লালবাগ থানায় মামলা দায়ের করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী।

পরবর্তীতে মামলার অভিযোগকে মিথ্যা দাবি করে ওইদিন (সোমবার) সমর্থকদের নিয়ে সন্ধ্যায় মিছিল বের করে নুর। মিছিলটি মৎস্য ভবন এলাকায় গেলে সেখান থেকে সাত সমর্থকের সাথে রাত সাড়ে ৮টার দিকে নুরকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে গ্রেপ্তারের কয়েক ঘণ্টা পরই তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত বছর অনুষ্ঠিত হওয়া ডাকসু নির্বাচনে সহ-সভাপতি (ভিপি) নির্বাচিত হন নুরুল হক নুরু। ক্ষমতাসীন দলের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ছাড়া অন্য প্রার্থীরা শেষ মুহূর্তে নির্বাচন বয়কট করেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত ভিপি পদ ও সমাজ কল্যাণ পদ ছাড়া মোট ২৫টি পদের ২৩টিতে নির্বাচিত হয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

Check Also

ভেতরে অঝোরে কান্না আটকের পর বাইরে এসে হাসি

র‌্যাব সদস্যদের দেখেই কান্না শুরু কিন্তু আটকের পর হাওয়া সেই কান্না। উল্টো অট্টহাসিতে গণমাধ্যমের ক্যামেরাবন্দী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *