ওসির বিরুদ্ধে লেখায় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা

 

 

জামালপুর প্রতিনিধি:
জামালপুরের সরিষাবাড়িতে ওসি মাজেদেও বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় মিথ্যা মামলার শিকার হয়ে উৎকন্ঠায় মানবেতর দিন পার করছে সাংবাদিক মাসুদুর রহমান। বিষয়টি নাড়া দিয়েছে স্থানীয় সচেতন মহল ও সরিষাবাড়ির কর্মরত সাংবাদিকদের মধ্যে । তারা অতি দ্রুত সাংবাদিক মাসুদুর রহমানকে সকল মামলা থেকে অব্যাহতির দাবি জানান। তবে সরিষাবাড়ি থানার তৎকালীন ওসি মাজেদুর রহমানের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় ৩টি মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছেন সাংবাদিক মাসুদুর রহমান।
সাংবাদিক  মাসুদুর রহমান মুভি বাংলা টিভিতে  স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে ঢাকায় কর্মরত রয়েছে। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, অনলাইন এডিটরস কাউন্সীল এর সমাজ সেবা বিষয়ক সম্পাদক , রাজধানীর তেজগাঁও কলেজ সাংবাদিক সমিতির সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
জানা  যায়- ২০১৮ সালে জেলার স্থানীয় দৈনিক আলোচিত জামালপুরের সরিষাবাড়ি প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন সাংবাদিক মাসুদুর রহমান। ২০১৮ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর “সরিষাবাড়ীতে লক্ষাধিক টাকায় থানা থেকে মুক্তি পেল সড়ক দুর্ঘটনায় আটককৃত ৪ জন” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদ প্রকাশের দুই দিন পর ২৬ সেপ্টেম্বর রাতে  এ এসআই আনসার আলীর ফোনে বাড়ি থেকে বেড় হয়ে পৌর এলাকার ধানাটা ব্রীজে আসেন মাসুদুর রহমান। এরপর তাকে আটক করে থানায় এনে এসআই ঈমান আলী বাদী হয়ে একটি মাদক মামলা এবং একটি নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করে আদালতে এবং পরে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। যার মামলা নং-২৪ ও ২৫ তারিখ ২৭-৯-২০১৮ ইং ।  সেই সময় ১৩ দিন জেল হাজতে থাকার পর জামিনে মুক্তি পান তিনি।
এরপর ২০১৮  সালের ১৮ অক্টোবর সরিষাবাড়ির বীরধানাটা বি.জে.সি দুর্গা ও কালি মন্দিরে বিক্ষুব্ধ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশের উপর হামলা করে একদল যুবক। ঘটনার সময় সাংবাদিক মাসুদুর রহমান নিজ বাড়িতে অবস্থান করলেও তাকে মামলার প্রধান আসামী করা হয়। এরপর ১৮ নভেম্বর মহামান্য হাইকোর্টে তার পক্ষে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী ইসরাফিল হোসাইন জামিনের আবেদনে বিচারপতি মোহাম্মদ আব্দুলহাফিজ ও বিচারপতি মোঃ মহিউদ্দিন শামীম এন্টিসিপেটরী জামিন চারসপ্তাহের জন্য মঞ্জুর করেন।দীর্ঘ ১ বছর ৪ মাস পর মাদক মামলাটি মিথ্যা প্রমানিত হওয়ায় জামালপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এর ৪র্থ আদালতের বিচারিক হাকিম সোলায়মান কবীর তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি প্রদান করেন ।
বাকি নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পুলিশের উপর হামলা মামলায় জামিনে থেকে আইনী লড়াই করছেন তিনি। সাংবাদিক মাসুদুর রহমান খুবই সাহসী একজন সাংবাদিক। তাকে দমিয়ে রাখতে রাজনৈতিক চাপে এই মামলাগুলো দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি খুবই ন্যাক্কার জনক। অতি দ্রুত সাংবাদিক মাসুদুর রহমানকে সকল মামলা থেকে অব্যাহতির দাবি জানান সচেতন মহল ও কর্মরত সাংবাদিকরা ।
বীর ধানাটা বি.জে.এম.সি শ্রী শ্রী দূর্গা ও কালী মন্দির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি শ্রী মোহন লাল , সহ-সভাপতি শ্রী কার্তিক চৌহান,সাধারন সম্পাদক শ্রী বিজয় দাস স্বাক্ষরিত একটি লিখিত প্রত্যয়ন পত্রে জানানো হয়- বিগত ১৮ অক্টোম্বর ২০১৮ ইং রোজ বৃহস্পতিবার অত্র পূজা মন্ডপে শান্তিপূুর্ণ ভাবে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে । মোঃ মাসুদুর রহমান ,পিতা- মোজাম্মেল হক ,সাং- ধানাটা ,থানা- সরিষাবাড়ী,জেলা-জামালপুর-কে জড়িয়ে যে মামলা আনয়ন করা হয়েছে তাহা সঠিক নহে  তাহার দ্বারা আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা পেয়ে থাকি । মাসুদুর রহমান একজন সৎ ও নির্ভিক সাংবাদিক বলে উল্লেখ করেন তারা।
এসব বিষয়ে সাংবাদিক মাসুদুর রহমান বলেন- সত্য সংবাদ প্রকাশ করায় আমাকে ৩টি মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। এখন আমার বেশিরভাগ সময় মামলা জনিত কারনে ব্যায় করতে হয়। এতে আমি মানসিক ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছি। তবুও আমি সবসময় সত্য সংবাদ প্রকাশ করে যাবো। তবে আর কোনো সাংবাদিক যেনো এমনভাবে মিথ্যা মামলার শিকার না হয় সেই দাবি জানান তিনি।

Check Also

আজ সাংবাদিক রোজিনার জামিন আবেদনের আদেশ

প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে সরকারি নথি চুরি ও অফিসিয়াল সিক্রেটস আইনে দায়ের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *