ভারতজুড়ে কৃষকদের বিক্ষোভ

ঢাকা : ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) বিতর্কিত কৃষি বিলকে কেন্দ্র করে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ চলছে। লোকসভায় অনুমোদিত নতুন এই বিলকে প্রত্যাখ্যান করে দেশটির কৃষক সংগঠনগুলো শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ‘ভারত বন্ধের’ ডাক দেয়। কংগ্রেসসহ দেশের অধিকাংশ বিরোধী দলই কৃষকদের এই আন্দোলনে নীতিগত সমর্থন জানিয়েছে। খবর আনন্দবাজারের।

কোথাও রাস্তা আটকে, কোথাও ‘রেল রোকো’ অভিযানের মাধ্যমে এই বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন কৃষকরা। পাঞ্জাব ও হরিয়ানার বিভিন্ন জায়গা ছাড়াও কর্নাটক, মহারাষ্ট্র, অমৃতসর, জালন্ধর, লুধিয়ানা, অম্বালা, চন্ডীগড় ও বিহারে চলছে প্রতিবাদ বিক্ষোভ। পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে না যায়, সে জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংহ বিক্ষোভকারী কৃষকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করার আবেদন জানিয়েছেন। কৃষি বিলের বিরুদ্ধে বিহারের রাস্তায় এক র‌্যালিতে রাষ্ট্রীয় জনতা দলের (আরজেডি) নেতা তেজস্বী যাদব অংশ নিয়েছেন।

এই বিলকে কৃষকবিরোধী অ্যাখ্যা দিয়ে তেজস্বী বলেছেন, ‘সরকার আমাদের ‘অন্নদাতাদের’ পুতুল বানানোর চেষ্টা করছে। ২০২২-র মধ্যে কৃষকদের রোজগার দ্বিগুণ করার কথা বলেছিল সরকার। কিন্তু এই বিল তাঁদের আরও গরিব করবে।’ আন্দোলনকে সমর্থন করে রাহুল গান্ধী লিখেছেন, ‘ক্রুটিপূর্ণ জিএসটি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পকে ধ্বংস করেছে। নতুন কৃষি আইন আমাদের কৃষকদের ক্রীতদাস বানাবে।’

একই কথা বলছেন প্রিয়ঙ্কার গান্ধীও। তিনি লিখেছেন, ‘কৃষকদের থেকে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য কেড়ে নেয়া হবে। কোটি কোটি কৃষকদের ক্রীতদাসে পরিণত হতে বাধ্য করা হবে। না পাবে দাম, না পাবে সন্মান। নিজের জমিতেই শ্রমিকে পরিণত হবে কৃষকরা।’ এই বিল দেশের কৃষকদের আর্থিক উন্নতি জন্য আনা হয়েছে বলে শুরু থেকে দাবি করে আসছে কেন্দ্রীয় সরকার।

বৃহস্পতিবার বিতর্কিত বিল নিয়ে কৃষকদের ‘বোঝাতে’ কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর বলেন, ‘এই বিলে কৃষকদের ক্ষতি হবে, এমন কোনো বিষয় নেই। ছোট কৃষকদের লাভের কথা ভেবেই বিল আনা হয়েছে। বিরোধীদের আপত্তি উড়িয়ে দিয়ে একরকম ‘গায়ের জোরেই’ সংসদে বিল পাস করেছে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার। তারপর থেকেই দেশের অধিকাংশ বিরোধীরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। বিলে সই না করার জন্য রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেছেন তারা।

এদিকে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দাবি করেছেন, ‘মিথ্যে বলে এত দিন কৃষকদের পাওনা থেকে বঞ্চিত করে রেখেছিলেন যারা, তারাই এখন কৃষকদের কাঁধে বন্দুক রেখে চালাচ্ছেন। সরকারি নীতি নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন।’

Check Also

টাইমের ১০০ প্রভাবশালীর তালিকায় মোদি-মমতা-বারাদার

ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক টাইম ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *