আমি জড়িত নই, ন্যায়বিচার পাইনি: সাহেদ

অস্ত্র মামলায় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই রায়ের প্রতিক্রিয়ায় সাহেদ বলেছেন, তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। ন্যায় বিচার পাননি বলেও দাবি করেন তিনি।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকার এক নম্বর স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক কেএম ইমরুল কায়েশ এ রায় ঘোষণার পরপর তিনি এ কথা বলেন।

রায় ঘোষণার পর সরাসরি তাকে প্রিজন ভ্যানে নিয়ে যাওয়া হয়। তখন সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সাহেদ বলেন, আমি ঘটনার সঙ্গে জড়িত নই। ন্যায়বিচার পাইনি। রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

রায় ঘোষণার পর প্রতিক্রিয়ায় সাহেদের আইনজীবী মনিরুজ্জামান বলেন, মামলাটির বিচার এত দ্রুত হচ্ছে, এটা নিয়ে আমরা আগে থেকেই আশঙ্কায় ছিলাম। সেই আশঙ্কাই আজ সত্য হলো। মামলাটি আমাদের ঘাড়ের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ রায়ে আমরা আমরা অসন্তুষ্ট, সংক্ষুদ্ধ। উচ্চ আদালতে আপিল করলে আমরা ন্যায় বিচার পাবো। সেখানে আসামি খালাস পাবেন বলে বিশ্বাস করি।

এদিকে রায়ে আসামির সর্বোচ্চ সাজা হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু বলেন, এ মামলায় তাকে আমরা সর্বোচ্চ সাজা দিতে পেরেছি, এজন্য আমরা সন্তুষ্ট। সাহেদের বিরুদ্ধে অপর মামলাগুলো তদন্ত শেষে আদালতে এলে, সেগুলো দ্রুত বিচার শেষ করার চেষ্টা করবো।

গত ২০ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপক্ষ এবং আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের এ তারিখ ঠিক করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা সীমান্ত থেকে গ্রেপ্তার করা হয় সাহেদকে। পরদিন করোনা পরীক্ষার নামে ভুয়া রিপোর্টসহ বিভিন্ন প্রতারণার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ডে থাকা সাহেদকে নিয়ে ১৮ জুলাই রাতে উত্তরায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করে গোয়েন্দা পুলিশ। পরে তার বিরুদ্ধে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক এস এম গাফফারুল আলম অস্ত্র মামলা করেন।

Check Also

সেই রিসোর্টে মদ সরবরাহকারী জাহিদ গ্রেপ্তার

গাজীপুরের সারাহ রিসোর্টে বিষাক্ত মদ্যপানে ৩ জনের মৃত্যুর ঘটনায় মদ সরবরাহকারী মো. জাহিদ মৃধাকে রাজধানীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *