চট্টগ্রামে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী

চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং থানা এলাকায় ফুফুর বাসায় বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী। এ ঘটনায় সহযোগিতা করার অভিযোগে পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে। তবে প্রধান অভিযুক্ত চান্দু পলাতক রয়েছেন।

রোববার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ডবলমুরিং থানার সুপারিওয়ালা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার ফুপুর বাসায় বেড়াতে যায় ওই ছাত্রী। এরপর তার ফুফাতো বোনের বান্ধবী নুরী বেগম নিজ বাসায় দাওয়াত খাওয়ানোর কথা বলে সন্ধ্যার দিকে তাকে ডেকে নিয়ে যায়। নুরী বেগম নিজ বাসায় না নিয়ে তাকে চান্দুর বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে ওই ছাত্রীকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়।

পরে ফুফুর বাসায় ফিরে গিয়ে ঘটনা খুলে বললে স্থানীয়রা প্রথমে নুরীকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ নুরী ও তার স্বামীকে আটক করে। এছাড়া, চান্দুর বাসায় অভিযান চালিয়ে রাজীব নামে তার এক সহযোগীকেও আটক করে।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের পশ্চিম বিভাগের উপকমিশনার ফারুক উল হক বলেন, ‘স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় চান্দু নামে একজন জড়িত রয়েছে বলে আমরা অভিযোগ পেয়েছি। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে ইতিমধ‌্যে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।’

Check Also

রাতের আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারে ভয়ংকর আতঙ্ক

নগরীর আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভার হয়ে উঠেছে নগরবাসীর জন্য আতঙ্কের নাম। প্রতিনিয়তই এখানে ঘটছে ছিনতাই, ডাকাতিসহ নানা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *