সন্তান ছেলে না মেয়ে জানতে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর পেট কাটলেন স্বামী

পাঁচ কন্যার বাবা পান্নালাল। ছেলের আশায় প্রতিবারই মেয়ে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তার স্ত্রী। এবারও স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ছেলে হবে নাকি মেয়ে, তা জানার জন্য তর সইছিল না। সেই উৎকণ্ঠায় স্ত্রীর পেট কেটে ভ্রূণের লিঙ্গ জানার চেষ্টা করেন পাষণ্ড স্বামী।

নৃশংস এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের বাদাউনে। পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া।

আহত নারীর পরিবারের অভিযোগ, পান্নালাল একটি ছেলে সন্তান চাইত। তার স্ত্রীর পরপর পাঁচটি কন্যা সন্তান হয়েছে। এবারও তার স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ছেলে হবে নাকি মেয়ে, তা জানার জন্য উত্‍‌সুক ছিল পান্নালাল। তাই সে আসন্ন সন্তানের লিঙ্গ জানতে এই অপরাধ করে।

পুলিশ জানিয়েছে, পান্নালালের স্ত্রী গুরুতরভাবে জখম হয়েছেন। হাসপাতালে তার চিকিত্‍‌সা চলছে।

পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তা প্রবীণ সিং চৌহান জানিয়েছেন, পান্নালাল ধারাল অস্ত্র দিয়ে তার ৩৫ বছরের স্ত্রীর পেট কেটেছে। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার কারণ খোঁজার চেষ্টা চলছে।

Check Also

জৈবিক স্বাদ নিতে ঢাকা শহরের কোটিপতি সুন্দরীদের বয় ফ্রেন্ড হতে পারেন

টাকার বিনিময়ে যৌনসঙ্গি ভাড়া করছেন নারীরা নিজেই। এটা বাইরের কোন ঘটনা নয়।বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা সহ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *