না’গঞ্জে দারোগার গ্রেফতারের দাবি নিয়ে  গৃহবধূর পরিবারের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টারঃ
নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার ওয়ারেন্ট স্বত্তে¡ও চান বাদশা(৩৫)নামে
পুলিশের দারোগাকে গ্রেফতার করছেনা বলে এমন অভিযোগ তুলে মানববন্ধন করেছে
ভুক্তভোগী এক গৃহবধূ ও তার পরিবারের সদস্যরা। সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ
প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় নির্যাতিতা ওই গৃহবধূ
তার দুই সন্তানের ভরন পোষন এবং স্ত্রীর অধিকার না পাওয়া কথা তুলে ধরেন।
গৃহবধূ লিখিত এক বিবৃত্তিতে উল্লেখ করেন,আজ ১২ অক্টোবর ২০২০ নারায়ণগঞ্জ
জেলা প্রেস ক্লাবের সামনে মানব বন্ধে উপস্থিত হইয়া আমার পরিবার সহ সবাই
লিখিত ভাবে জানাচ্ছি যে, আমি লিজা আক্তার ১৩ বৎসর যাবৎ দুই সন্তানের মা
হওয়ার পরেও নিজ বাড়ীতে থেকে স্ত্রীর অধিকার পাচ্ছি না স্বামী এবং নন দেবর
বাসুর তাদের দ্বারা নির্যাতিত নির্যাতনের তুচ্ছতা সহয্য করতে না পেরে
বন্দর থানায় অভিযোগ করি। এর কোন সুফলতা না পেয়ে পুলিশ সদস্য চাঁন বাদশার
হুমকির মুখে পড়ি সাহায্য না পেয়ে ধৈর্য্যহারা হারা হয়ে গত ২৭আগষ্ট ঢাকা
পুলিশ হেড কোয়াটারে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি যাহার সিরিয়াল নং-১০৯১
এবং ডি আইজি অফিসে অভিযোগ করি, বিভাগীয় পুলিশ সুপারের অধীনে অভিযোগ করি
স্বরাস্ট্র মন্ত্রানালয়ে ও আইন মন্ত্রানালয়ে অভিযোগ করি এর সুফলতা না
পেয়ে আদালতে হাজির হই। নারায়ণগঞ্জ জেলা কোর্টে নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনালে
একখানা মামলা দায়ের করি এবং মাননীয় আদালত ধারা ঃ ১১(ক) /৩০, চান বাদশার
উপর ওয়ারেন্ট জারি করেন এবং তার ভাই-বোনদের সমন জারি করে। যাহার মামলার
সিরিয়াল নং-৪১২/২০ বন্দর থানায় ০১/১০/২০২০ইং তারিখে ওয়ারেন্টটি যায়।
ওয়ারেন্ট যাওয়া স্বত্বে চান বাদশা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং আমাকে এবং
আমার দুই সন্তানকে প্রকাশ্যে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করছে।
এমতাবস্থায় বর্তমান সরকারের প্রতি আস্থাশীল, সরকারের আইনের প্রতি
শ্রদ্ধাশীল একজন সুনাগরিক হিসাবে আমার আকুল আবেদন আমার দুই সন্তান এবং
আমার সম্পূর্ণ অধিকার চাহিয়া সরকার, জনসাধারন এবং মিডিয়া ভাইদের নিকট
বিশেষ আবেদন রহিল।

Check Also

উপবৃত্তির টাকা আতœসাতের ঘটনায় ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি: শিক্ষার্থীদের মোবাইল নম্বর পরিবর্তন করে উপবৃত্তির টাকা আতœসাতের অভিযোগে কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *