শুধুমাত্র মৃত্যুদন্ডই কি পারবে ধর্ষণ রোধ করতে?

ধর্ষক একটি জঘন্যতম অপরাধ। টেলিভিশন খুললেই প্রতিদিন ধর্ষণের খবর  দেখা যায়। ধর্ষণ রোধের উপায় কি?     

সম্প্রতি  বাংলাদেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদন্ড করা হয়েছে। এখন কথা হলো শুধুমাত্র, ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদন্ড হলেই কি ধর্ষণ বন্ধ হয়ে যাবে? বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধর্ষনের শাস্তি বিভিন্ন রকম। কোনো কোনো দেশে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদন্ড,কোনো কোনো দেশে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, আবার কোনো দেশে বিভিন্ন মেয়াদে জেল। কিন্তু এমন কোনো দেশ আছে যেখানে ধর্ষণ নেই?   

মঙ্গোলিয়া এমন একটি দেশ যেখানে ধর্ষণের শাস্তি “ধর্ষিতার পরিবারের হাত দিয়ে ধর্ষককে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা “। কিন্তু কথা হলো এই দেশটি কি আদৌ ধর্ষণ নিরোধন সম্ভব হচ্ছে?    দেশটিতে প্রতিবছর গড়ে ধর্ষণ হয় ১২.৪০ শতাংশ! তাহলে মৃত্যুদন্ডের মাধ্যমে কেন ধর্ষণ রোধ করতে পারেনি!     

এক তথ্য অনুযায়ী দেখা যায় চিনে ২০১৫ সালে ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটে ২১২৫২ জন। অন্যদিকে দেশটি ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি হলো মৃত্যুদন্ড।           

ধর্ষণ রোধ করার জন্য মৃত্যুদন্ডের পাশাপাশি বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহন করতে হবে।যেমন আইনের শাসন,নৈতিক শিক্ষা,সুস্থ সংস্কৃতি ইত্যাদি। নাটক, সিমেনা,সাহিত্য সব জায়গায় যদি যৌনতার ছড়াছড়ি থাকে তাহলে সকলের মাঝে যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধি পাবে। ফলে শাস্তি কার্যকর হলেই ধর্ষণ বন্ধ সম্ভব না।

সুস্থ সংস্কৃতি বিকাশের জন্য দেশে আইন আনুষ্ঠানিক ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। এক্ষেত্রে সরকার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। তথ্যসূত্র হতে দেখা যায় আরব দেশগুলোতে ধর্ষণের সংখ্যা কম। এর প্রধান কারন হলো ইসলামিক সংস্কৃতি ও আইনের যথাযথ প্রয়োগ।    শুধুমাত্র ফাঁশি কার্যকর  এর মাধ্যমে ধর্ষণ নিরোধন সম্ভব না। ধর্ষণ নিরোধের জন্য চাই সুস্থ সংস্কৃতি,  নৈতিক শিক্ষা ও আইনের  শাসন।এর কোনোটিতেই বাদ দে ধর্ষণ বন্ধ করা সম্ভব না বলে আমি মনে করি।

Check Also

সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজারবাগ দরবার শরীফের বিবৃতি

সম্প্রতি সিআইডির একটি কথিত তদন্ত প্রতিবেদন এবং কয়েকটি মানববন্ধনকে কেন্দ্র করে গণমাধ্যমে রাজারবাগ দরবার শরীফের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *