ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ইন্টারনেটের জন্য ২৮ টাকা পাবে শিক্ষার্থীরা!

অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণের জন্য ডাটা প্যাক ক্রয়ে শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহযোগিতা করছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শিক্ষক সমিতি। এ লক্ষ্যে সমিতির নেতারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির মাধ্যমে বিভাগীয় সভাপতির কাছে চেক হস্তান্তর করেছেন।

সোমবার দুপুরে ভিসি প্রফেসর ড. আবদুস সালাম তার সম্মেলন কক্ষে চেক হস্তান্তর কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

এ সময় তিন লাখ ৪৩ হাজার ২০ টাকার সহায়তা চেক প্রদান করা হয়েছে। সমিতির হিসাব অনুযায়ী ৩৪ বিভাগের ১১ হাজার ৯৮৯ শিক্ষার্থী রয়েছেন। ওই হিসাবে প্রত্যেক শিক্ষার্থী ডাটা ক্রয়ে পাবেন ২৮ টাকা ৫৯ পয়সা।

শিক্ষক সমিতির দেয়া তথ্যমতে, ৩৪ বিভাগের ব্যাচ ও শিক্ষার্থী সংখ্যা হিসাব করে বিভাগের জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে টাকা বণ্টন করা হয়েছে। তালিকা মতে- সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ৫০০ টাকা আর্থিক সহায়তা পেয়েছে ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগ।

এ বিভাগের বর্তমান ব্যাচ সংখ্যা ৭টি এবং শিক্ষার্থী সংখ্যা ৫৭৭ জন। এ হিসেবে ওই বিভাগের প্রত্যেক শিক্ষার্থীরা পাবেন ২৮ টাকা করে। একই সঙ্গে সর্বনিম্ন এক হাজার টাকার আর্থিক সহায়তা পেয়েছে চারুকলা বিভাগ। এ বিভাগের ব্যাচের সংখ্যা ১টি এবং শিক্ষার্থী সংখ্যা ৩০ জন।

জানা যায়, করোনা সংক্রমণের ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় এপ্রিলের শুরুতে শিক্ষকদের একদিনের বেতন কর্তন করে ইবি শিক্ষক সমিতি। এতে জমা পড়ে ৭ লাখ ৬৮ হাজার ৯৭৩ টাকা। এই অর্থ থেকে প্রথম পর্যায়ে ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মচারী, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও ভ্যানচালকদের মাঝে সহায়তা প্রদান করা হয়।

অবশিষ্ট ৩ লাখ ৪৩ হাজার ২০ টাকার চেক শিক্ষার্থীদের ডাটা ক্রয়ে সহায়তার জন্য আনুপাতিক হারে ভাগ করে বিভাগীয় সভাপতিদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

জানা যায়, এর আগে বিভিন্ন বিভাগ নিজ উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা ও ডাটা ক্রয়ে সহায়তা করে। তবে শিক্ষার্থীদের জোর দাবি থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে এমন কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

চেক হস্তান্তরকালে উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. কাজী আখতার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোস্তাফিজুর রহমান, প্রক্টর, ছাত্র উপদেষ্টা, পরিবহন প্রশাসক প্রমুখ।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির সভাপতি বলেন, অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাসে নেট কেনার সুবিধার্থে আমরা এ উদ্যোগ হাতে নিয়েছি। আমরা বিভাগীয় সভাপতিদের হাতে চেক তুলে দিয়েছি। বিভাগ তার অসচ্ছল শিক্ষার্থী বাছাই করে টাকা বণ্ঠন করবে।

Check Also

বেরোবি ভিসিকে নিয়ে মন্তব্য করায় শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

বেরোবি প্রতিনিধি: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) ক্যাম্পাসে আয়োজিত সরস্বতী পূজায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *