শোবিজ ছাড়ার পর মুফতিকে বিয়ে, এবার নামও বদলালেন সানা

বলিউডের একটি শো বিগ বস-এ যোগ দিয়ে খ্যাতি পান সানা খান। কয়েকমাস আগে সানা ঘোষণা করেন, তিনি শোবিজকে বিদায় জানাচ্ছেন। কারণ এবার তিনি আল্লাহর পথে চলবেন। তারপর আবারো সবাইকে চমক দিয়েছেন সানা। ২১ নভেম্বর ভারতের গুজরাটের সুরাটের এক মুফতি আনাস সায়েদকে বিয়ে করেন এই বলিউড অভিনেত্রী। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

শোবিজ দুনিয়াকে বিদায় জানিয়ে সানা খানের একজন মুফতিকে বিয়ের খবরে তোলপাড় ভারতীয় মিডিয়া।

এবার জানা গেলো আরেক খবর। নাম বদলেছেন সানা খান। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের নামের আগে যোগ করেছেন স্বামীর নাম। ইনস্টাগ্রামে এখন তার নাম দেখা যাচ্ছে সাইয়িদ সানা খান।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে সানা খান ও তার স্বামীর বিয়ের ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। গতকাল এই অভিনেত্রী ইনস্টাগ্রামে স্বামীর সঙ্গে প্রথম ছবি আপলোড দিয়ে ক্যাপশনে লেখেন, ‘আল্লাহর জন্য আমরা ভালোবেসেছি, আল্লাহর জন্য আমরা বিয়ে করেছি, আল্লাহ এই দুনিয়ায় আমাদের একসঙ্গে রাখুন এবং জান্নাতেও আমাদের পুনর্মিলন করুন।’

গত ৮ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক দীর্ঘ বার্তায় ৩৩ বছর বয়সী সানা খান বলিউড ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন এবং জানিয়েছিলেন ইসলামের পথে চলতে চান তিনি।

ক্যারিয়ারে হিন্দি, মালয়ালাম, তামিল, কন্নড় ও তেলেগু ভাষার সিনেমায় দেখা গেছে সানা খানকে। এ ছাড়া বিজ্ঞাপন ও রিয়েলিটি শোতে দেখা যায় তাকে। পাঁচ ভাষার ৫০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন সানা। ২০১২ সালে জনপ্রিয় ও বিতর্কিত টিভি রিয়েলিটি শো বিগ বসের প্রতিযোগী ছিলেন সানা এবং চূড়ান্ত পর্বে উঠেছিলেন।

২০০৫ সালে ‘ইয়ে হ্যায় হাই সোসাইটি’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় সানা খানের। এরপর তিনি বলিউডে ‘হাল্লা বোল’, ‘জয় হো’, ‘ওয়াজা তুম হো’ ও ‘টয়লেট : এক প্রেম কথা’র মতো সিনেমা করেন।

Check Also

পরীমণিকে নিয়ে যা বললেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ

ডেস্ক: মাদক মামলায় দুই দফা রিমান্ড শেষে চিত্রনায়িকা পরীমণির জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *