শিবগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মা ও ছেলেকে লাঞ্চিতের অভিযোগ

 

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার আটমূল ইউনিয়নের
কাটগাড়া চকপাড়া গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মা ও ছেলে লাঞ্চিত হয়ে
হাসপাতালে ভর্তি। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় ঘটনাটি ঘটেছে। থানায়
লিখিত অভিযোগ।
জানা যায়, উপজেলার কাটগারা চকপাড়া গ্রামের প্রবাসী আব্দুল বারী ফকিরদের
বাঁশঝাড়ে একই গ্রামের মৃতঃ আজহারের মেয়ে রেশমা (৩০) ও তার মা নুরজাহান
(৫৫) জোরপূর্বক বাঁশ কাটতে আসলে আব্দুল বারীর নাবালক ছেলে হীরা (১০) বাধা
দিলে ঘটনাস্থলেই স্বামী পরিত্যক্তা রেশমা ও তার মা নুরজাহান বেগম ক্ষিপ্ত হয়ে
নাবালক হীরাকে লাঞ্চিত করে হীরা মাটিতে ফেলে দিয়ে রেশমা হীরার গলার উপরে পা
তুলে দেয়। ছেলে হীরার চিৎকার চেঁচামেচি শুনে মা হানু বেগম তার ছেলেকে
বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তাকেও নির্যাতন করে। আহতের খবর পেয়ে হানু
বেগমের ভাই ইউসুফ কাজী বোন ও ভাগিনাকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য
কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে।
প্রত্যক্ষদর্শী নুর মোহাম্মদ ও রাবেয়া বলেন, রেশমা ও তার মা নুরজাহান বিনা
উস্কানিতে অন্যায়ভাবে মারপিট করে মা ও ছেলেকে আহত করেছে। নির্যাতনের
শিকার নাবালক হীরা ও তার মা হানু বেগম বলেন, আমাদের বাঁশঝাড়ে অন্যায় ভাবে
রেশমা ও তার মা নুরজাহান বাঁশ কাটতে আসলে আমরা বাধা দিলে তারা আমাদের
দাঁ ও লাঠি দিয়ে মেরে আহত করে।
অভিযুক্ত রেশমা ও তার মা নুরজাহানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তাদেরকে
বাড়িতে পাওয়া যায়নি। এসময় বাড়িতে থাকা রেশমার ভাবী সুমি বলেন,
ভুলবোঝাবুঝির কারণে এমন ঘটনা ঘটতে পারে। আহত হানু বেগমের ভাই ইউসুফ
কাজী বলেন, আমার বোন ও ভাগিনাকে অন্যায় ভাবে নির্যাতন করা হয়েছে
প্রশাসনের কাছে এর সঠিক বিচার চাই।
শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান এ প্রতিবেদক-কে
বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপের্ক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Check Also

তানোরে দুই দিনব্যাপী বদন খেলা আয়োজন

আলিফ হোসেন, তানোর রাজশাহীর তানোরে আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি ধরে রাখতে দুই দিনব্যাপী বদন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *