আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে লিয়াকত আলী সরকার টুটুল

রেজওয়ান আলী,বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি-আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে গনসংযোগে পৌর এলাকায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে জনসাধারণের মন্তব্যে জানা যায়। জানা যায়,আলহাজ্ব লিয়াকত আলী সরকার টুটুল গত নির্বাচনে জয়লাভ করার পর থেকে দ্বায়িত্ব কর্তব্যে জনসাধারণের উন্নয়নে কার্যক্রম পরিচালনা করে গেছেন মর্মে জনগণের নিকট হইতে জানা যায়।

এ বিষয়ে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে পর্যবেক্ষণে জনসাধারণের নিকট হইতে জানা যায়,মেয়র আলহাজ্ব লিয়াকত আলী সরকার টুটুল নির্বাচনে জয়লাভ করার পর থেকে আমাদের উন্নয়নে সার্বিক ভাবে দ্বায়িত্ব পালন করে গেছেন।
কোভিট-১৯,করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জনসাধারণের প্রতিটি ওয়ার্ডে অন্তর্ভুক্ত প্রতিটি পাড়া মহল্লায় প্রতিটি ঘরে ঘরে মানুষের মাঝে মাস্ক ও খাদ্য দ্রব্য বিতরণে সকলের নিকট পৌছে দেয় ও জনসচেতনতা সৃষ্টি করেন।

উন্নয়নে ধাঁরাবাহিকতার পাশাপাশি প্রতিটি ওয়ার্ডের রাস্তা ঘাট সংস্করণের কাজ অব্যাহত ভাবে চালিয়ে আসছেন। জনসাধারণের মধ্যে ভাতাভোগীর উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম জোরাল ভাবে কাজ করে গেছেন বলে তারা মন্তব্য করেন। আরও জানা যায় যে,আলহাজ্ব লিয়াকত আলী সরকার টুটুল সরকার দলীয় ভাবে কাজ করে আসছেন। তার পিতা মৃত্যু হোসেন আলী সরকার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলেই বিগত আমল থেকে দেশ ও জনগণের উন্নয়নে কাজ করে গেছেন।তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হয়ে ন্যায় প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। তারই ধাঁরাবাহিকতায় লিয়াকত আলী সরকার টুটুল তারই হাত ধঁরে সূযোগ্য সন্তান তার পিতার অসমাপ্ত কাজগুলো অব্যাহত ভাবে করে যাচ্ছেন।
যাহা বর্তমান তার জনপ্রিয়তার শীর্ষে দাঁড়িয়েছেন। এ বিষয়ে জনসাধারণ আরও বলেন আমরা পূনরায় লিয়াকত আলী সরকার টুটুল কে বিরামপুর পৌরসভা মেয়র রুপে দেখতে চাই বলে তারা মন্তব্য করেন।
সরকার অবশ্যই যেন লিয়াকত আলী সরকার কে পূনরায় নৌকা প্রতিক প্রদান করেন তবেই এলাকায় নৌকা প্রতিকের সম্মান থাকবে বলে মন্তব্য জোর দাবি জানান। তিনি গত নির্বাচনে দলীয় প্রতিক নৌকা না পেয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ায় জনসাধারণের অনুপ্রেরণায় তাদের ভালোবাসার তাগিদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।

Check Also

পাকেরহাট সরকারী কলেজে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

এস.এম.রকি,খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট সরকারী কলেজে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *