২ ফুট উচ্চতা নিয়েই নায়িকা হলেন গিনেস বুকের ক্ষুদ্রকায়া রমণী জ্যোতি

উচ্চতায় মাত্র ২ ফুট হওয়া সত্ত্বেও নায়িকা বনে গেলেন গিনেস বুকের ক্ষুদ্রকায়া রমণী জ্যোতি। মহারাষ্ট্রের নাগপুরের জ্যোতি কিসানজি অমগেকে বিদ্রূপের শিকার হতে হয়নি। ২৭ বছরে দুনিয়ার অনেক খারাপের পাশাপাশি তার প্রাপ্তির খাতাটিও বেশ পরিপূর্ণ।

শারীরিক দিক থেকে অভাব রাখলেও বিধাতা তার সৌভাগ্যের খাতে যেন সেই অভাব পুষিয়ে দিয়েছেন। শারীরিক উচ্চতার জন্য জ্যোতি তকমা পেয়েছেন বিশ্বের ক্ষুদ্রকায়া নারীর, যা তাকে দিয়েছে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড। কিন্তু এছাড়াও তার দিকে মনোযোগ দিয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ।

গিনেস বুকের ক্ষুদ্রকায়া রমণী জ্যোতি

গিনেস বুকের ক্ষুদ্রকায়া রমণী জ্যোতি

জামাকাপড়সহ, খাওয়াদাওয়ার বাসনও জ্যোতির জন্য আলাদা করে বানিয়ে দিতে হয়। এরপরও এই জীবন নিয়ে তার কোনো অভিযোগ নেই। বরং এই শারীরিক ত্রুটি যে তাকে ভিড়ের চেয়ে আলাদা করে রেখেছে এবং সম্মানও দিয়েছে, তার জন্য গর্বিত এই দুই ফুটের যুবতী।

জ্যোতির মা রঞ্জনা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তার মেয়ের যখন পাঁচ বছর বয়স, তখন এই শারীরিক ত্রুটির দিকটা তাদের চোখে ধরা পড়ে। পাঁচ বছরের শিশুর তুলনায় জ্যোতির বৃদ্ধি ছিল উল্লেখযোগ্য রকমের কম। এরপর তাকে ডাক্তারের কাছে নেয়া হয়।

জ্যোতি

জ্যোতি

জানতে পারলেন যে, মেয়ে অ্যাকনড্রপলাসিয়া নামের এক বিশেষ বামনত্ব রোগের শিকার। এই রোগে আক্রান্তদের উচ্চতা একটা নির্দিষ্ট সীমার পরে আর বাড়ে না। জ্যোতি তাই ২ ফুটেই সীমাবদ্ধ রইলেন। শুধু তাই নয় জন্মের সময়ে জ্যোতির শারীরিক ওজন যা ছিল, পরে তা মাত্র ৪ কেজি বেড়েছে!

গিনেস ওয়ার্ল্ডে নাম না থাকলে জ্যোতির পরিণতি কী হতে পারত, তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যায়। কিন্তু এই সূত্রে তিনি নানা টিভি শোতে সগৌরবে উপস্থিত হয়েছেন। তিনি মুখ দেখিয়েছেন মিকা সিংয়ের গানের ভিডিওতে। তাকে নিয়ে আলাদা করে একটি তথ্যচিত্রও তৈরি হয়েছে, যার নাম টু ফুট টল টিন।

Check Also

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবে ১৭ বাংলাদেশি নিহত

লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবে কমপক্ষে ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া জীবিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *