রাতারাতি ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে যা করবেন

নারী পুরুষ সবারই সৌন্দর্যের সবচেয়ে বড় দিক তার মুখ। আর সেই মুখের যত্নেই যত অবহেলা। নামীদামী মেকআপে ত্বকের খুত ঢাকার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সবাই। এতে ত্বকের আরো বেশি ক্ষতি হচ্ছে। ত্বকে ব্রণ, র‍্যাশের সমস্যা সহ হারিয়ে যাচ্ছে ত্বকের উজ্জ্বলতা।

ঘরোয়া কিছু উপায় এবং বিশেষ কিছু যত্নের ফলে রাতারাতি ফিরিয়ে আনতে পারেন ত্বকের উজ্জ্বলতা। এজন্য প্রতিদিন আয়োজন করে রূপচর্চার প্রয়োজন নেই। কিছু বিষয় মাথায় রাখলেই আপনিও পেতে পারেন উজ্জ্বল ত্বক। চলুন জেনে নেই উপায়গুলো-

> এজন্য শুরুতেই আপনার খাওয়া- দাওয়ার ব্যাপারে নজর দিতে হবে। ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার, শাকসবজি, মাছ খান। প্রচুর পানি পান করুন। – পানি শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে।

> অতিরিক্ত চিনি/মিষ্টি খাবার খাওয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে। অতিরিক্ত মিষ্টিজাতীয় জিনিস মুখের চামড়া টানটান করে মুখে ভাঁজ ফেলে দেয়। আর অতিরিক্ত কোলাজেন শরীরের জন্য ভালো না।

> পর্যাপ্ত ঘুমাতে হবে। অনেকেই সারা রাত জেগে থাকে, যা শরীরের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। অনেক বেশি রাত জেগে থাকলে মুখ কালো হয়ে যায়, মুখ তার উজ্জ্বলতা হারিয়ে ফেলতে থাকে।

> সপ্তাহে অন্তত একটা দিন নিজের মুখের যত্ন নিন। ভালো করে মুখ পরিষ্কার করতে হবে সেদিন নানা ধরনের স্ক্রাব, ফেসওয়াশ দিয়ে। উপটান অথবা যে কোনো ধরনের ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। ফেসপ্যাকের ক্ষেত্রে ভালো হয় যদি কেউ ব্যবহার করে ঘরে বানানো কোনো প্যাক ব্যবহার করলে। কারণ বাজারে পাওয়া যায় এমন প্রসাধনীতে প্রচুর পরিমাণে ক্ষতিকারক পদার্থ থাকে যা ত্বকের জন্য বরাবরই ক্ষতিকারক।

> প্রতিদিন রাতে অবশ্যই ফেস পরিষ্কার করে তবেই ঘুমাতে হবে। কোনোভাবেই বাইরে থেকে এসে মুখ ময়লা অবস্থাতেই শুয়ে পরা যাবে না। প্রয়োজনে গোলাপ জল দিয়ে তুলোর সাহায্যে মুখ মুছে নিতে হবে। এবং মুখের স্কিনের ধরন অনুযায়ী ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে হবে।

> রূপচর্চার কোনো কিছু না করলেও এই কয়টি নিয়ম অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে। একদমই কোনো কিছু না করে সুন্দর ত্বক পাওয়া কখনই সম্ভব না। নিয়ম মেনে অন্ততপক্ষে এ কাজগুলো করলেই সুন্দর ত্বক পাওয়া যাবে।

Check Also

রাশিফলে জেনে নিন আপনার সঙ্গী আপনার প্রতি কতটা বিশ্বস্ত

রাশিফল অনুযায়ী আপনার সঙ্গী আপনার প্রতি কতটা বিশ্বস্ত, জেনে নিন বিস্তারিত ধনু— এদের সততা সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *