আল জাজিরার সংবাদ ভিত্তিহীন ও মানহানিকর: পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরায় প্রকাশিত ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার’স ম্যান’ শিরোনামের প্রতিবেদনকে ভিত্তিহীন ও মানহানিকর আখ্যায়িত করে তা প্রত্যাখ্যান করেছে বাংলাদেশ সরকার। মঙ্গলবার সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এই দাবি করা হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ সরকার আল জাজিরা নিউজ চ্যানেলে প্রচারিত ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার’স ম্যান’ শিরোনামে একটি মিথ্যা ও মানহানিকর প্রতিবেদন সম্পর্কে জানতে পেরেছে। এটি বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বিভ্রান্তিকর সিরিজ ছাড়া আর কিছুই নয়, যা উগ্রবাদী সংগঠন জামায়াত-ই-ইসলামীর সঙ্গে জড়িত কুখ্যাত ব্যক্তিদের যোগসাজশে রাজনৈতিক মদতপুষ্ট অপপ্রচার বলে স্পষ্ট। ১৯৭১ সালে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রগতিশীল ও ধর্মনিরপেক্ষ নীতির বিরোধিতা করে আসছে সংগঠনটি।’

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে গণহত্যা ও ধর্ষণের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আল জাজিরার প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়নি বলেও বিবৃতিতে সমালোচনা করা হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গুরুত্বপূর্ণ হলো এই প্রতিবেদনে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে গণহত্যার ঐতিহাসিক তথ্যের কথা উল্লেখ করা হয়নি। যখন জামাতের অপরাধীচক্র লাখ লাখ বেসামরিক বাঙালিকে হত্যা এবং দুই লাখের বেশি নারীকে ধর্ষণ করেছে। এই প্রতিবেদন আল জাজিরার সম্প্রচার ও তাদের প্রধান বিবরণদাতা মি. ডেভিড বার্গম্যানের রাজনৈতিক পক্ষপাতের প্রতিফলন।

উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে নিহতের সংখ্যা নিয়ে চ্যালেঞ্জ করায় বার্গম্যান বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল দ্বারা দোষী সাব্যস্ত।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উল্লেখ করেছে, প্রতিবেদনের ‘অভিযোগের মূল সূত্র একজন অভিযুক্ত আন্তর্জাতিক অপরাধী, যাকে আল জাজিরা নিজেই ‘সাইকোপ্যাথ’ হিসেবে বর্ণনা করেছে। প্রতিবেদনে ওই নির্দিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত থাকার ন্যূনতম প্রমাণও উপস্থাপন করা হয়নি। মানসিকভাবে অস্থির প্রকৃতির একজন মানুষের কথার ভিত্তিতে সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া একটি আন্তর্জাতিক নিউজ চ্যানেলের জন্য বড় ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ।’

‘এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই যে এই প্রতিবেদনটি বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচারের ধারার সাথে যুক্ত কিছু দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক অপরাধী এবং জামায়াত-ই-ইসলামীর পৃষ্ঠপোষকতায় নিন্দিত ব্যক্তিদের দ্বারা প্রচারিত হয়েছে। প্রায়ই আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সন্ত্রাসী গ্রুপ ও সংবাদমাধ্যম বিশেষ করে আল জাজিরার সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে জামায়াত-ই-ইসলামী।’

সবশেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উল্লেখ করেছে, উগ্রবাদী গোষ্ঠী এবং লন্ডনসহ বিভিন্ন স্থান থেকে কাজ করা তাদের মিত্রদের জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে এই বেপরোয়া ভিত্তিহীন ও বানোয়াট প্রচারণাকে প্রত্যাখ্যান করছে বাংলাদেশ সরকার।

Check Also

নেত্রকোনায় বজ্রপাতে ৭ কৃষকের মৃত্যু

নেত্রকোনার কেন্দুয়া, মদন ও খালিয়াজুরীতে মাঠে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে সাতজন কৃষক মারা গেছেন। এছাড়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *